Friday, 11 October 2019

যারা এসএসসি ও এইসএসসি এক্সাম দিবেন তারা পোস্টটি দেখুন

Image result for ssc exam
পরিক্ষা সামনে কিছু ভালো লাগেনা, আর মাত্র তিন চার মাস বাকী আছে।
কিন্তু পরিক্ষার চিন্তায় ভালো লাগে না, সারাবছর তো পড়ালেখা করি নাই, মেয়েদের পেছনে পেছনে ঘুরতে ঘুরতে বছরের শেষ প্রান্তে চলে এসেছে।
বাবার কতো টাকা শেষ করলাম প্রাইভেট পড়ে কতো খাতা কলম নষ্ট করলাম তার শেষ নেই, সেই সাথে সাথে সময় ও নষ্ট অনেক করলাম, এবং মাথাটাও নষ্ট করলাম ; পরিক্ষায় কি লিখবো বুঝতেছিনা।

আচ্ছা এই রকমের পরিস্থিতিতে পরেন নাই এমন কেউ আছেন?
হয়তো যাদের পরিাক্ষর প্রস্তুতি ভালো, এবং ভালো স্টুডেন্টস সেই বলতে পারে আমি আছি।
কিন্তু দেখা যায় অধিকাংশ ছেলেমেয়ারাই এরকম পরিস্থিতিতে পরে।

আপনি সারাবছর পড়েন নাই, এটা নিয়ে দুশ্চিন্তা করে কি লাভ বলেনতো?
কোনো লাভ নেই, লাভ ছিলো যখন সময় গুলো নষ্ট করতেছিলেন তখন যদি ভবিষ্যতের ভাবনা টা ভাবতেন।
অতীতে যা…ই করছেন না কেনো সেটা বর্তমানে ভাববেন না, একদম ভুলে যাবেন, এবং বর্তমান সময় টাকে মুল্য দিন তাহলেই ভালো ফলাফল করতে পারবেন।
যদি বলেন মাত্র ৩-৪ মাস পরে কোনোদিন ও ভালো রেজাল্ট করা সম্ভব নয়, তাহলে আমি বলবো আপনি বোকার চেয়ে ও বোকা।
আপনি যদি এই তিন চারমাস ১৪ ঘন্টা লেখা পড়া করেন তাহলে আপনাকে ভালো রেজাল্ট করা থেকে কেউ আটকাতে পারবে না, আপনি শ্রেফ চ্যাটিং করার সময় যেরকম মোবাইলের স্কিনের সামনে ঘন্টার পর ঘন্টা যেরকম মনোযোগ সহকারে বসে চ্যাটিং করেন, সেভাবে পড়ার টেবিলে বইয়ের সাথে চ্যাটিং করুন ;তাহলেই হলো।
যারা বলতেছেন, আমি যা পড়ছি সারা বছর তা দিয়ে পাশ করতে পারবোনা ……………
আমি বলি কি, আপনি এরকম চিন্তা বাদ দিয়ে আপনি যাস্ট মোবাইল, বন্ধু বান্ধব বাদ দিয়ে পড়ালেখায় মনোযোগ দিন, তাহলেই আপনি ভালো রেজাল্ট করতে পারবেন, ভালো রেজাল্ট না করেন অত্যন্ত পাশ তো করতে পারবেন!
এখন হয়তো বুঝতছেন না যে, একটা পয়েন্টের কতো মূল্য ভালো একটা কলেজে বা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার জন্য একটা পয়েন্টের কতোটা মূল্য।
বন্ধু বান্ধব, মেয়ে, মোবাইল এগুলো সব স্কিপ করে আজই দুটো রুটিন বানিয়ে ফেলেন, ১৪ঘন্টা লেখাপড়া করার জন্য, হয়তো এগুলো ছাড়তে একটু কষ্ট হবে, এবং এই ১৪ঘন্টার পরিবেশে এসে ও টিকে থাকাটা কষ্টকর হবে আপনার জন্য ;
তবে জেনে রাখুন জীবনে কিছু পেতে হলে কষ্ট ছাড়া সম্ভব নয়।
মাঠে কৃষক রোদ বৃষ্টির মধ্য হাল চাষ করে, তারপরেই সে সোনার ফসল লাভ করে।
পরিক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জন করতে আপনাকে ও এরকম পরিশ্রম করতে হবে তাহলে দিনশেষে আপনিও কৃষকের মতো খুশীতে নাচতে পারবেন।

1 comment: